ল্যাকটোজেন ১ খাওয়ার নিয়ম, বানানোর নিয়ম এবং দাম

ল্যাকটোজেন ১ খাওয়ার নিয়ম, বানানোর নিয়ম এবং দাম

 

ল্যাকটোজেন ১ হল একটি স্প্রে-ড্রাইড ফর্মুলা মিল্ক, যা শিশুদের খাওয়ার হিসেবে ব্যবহৃত হয়। জন্মের পর অনেক শিশু রয়েছে যারা মায়ের বুকের দুধ খেতে পারে না, তাদের বিকল্প হিসেবে এই ল্যাকটোজেন ১ খাওয়ানো হয়। তবে, মনে রাখবেন, মায়ের দুধ শিশুর জন্য সর্ব উত্তম এবং যতদিন পর্যন্ত সম্ভব তা অব্যাহত রাখতে উচিত। শিশুকে ল্যাকটোজেন ১ ফর্মুলা দেওয়ার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন।

 

ল্যাকটোজেন ১ এ ব্যবহৃত উপাদানসমূহ:

 

ল্যাকটোজ (এতে আছে মিল্ক)

হোয়ে পাউডার (এতে আছে মিল্ক)

স্কিম মিল্ক ড্রাইভ ১৬.০৪% (এতে আছে ল্যাকটোজ)

হাই অলিক সানফ্লাওয়ার অয়েল

কোকোনাট অয়েল

লো ইরোসিস এসিড রেপসিড অয়েল

সানফ্লাওয়ার অয়েল

সয়া লেসিথিন 322i (এতে আছে সয়াবিন)

ক্যারিয়ার গ্লুকোজ সিরাপ এবং ম্যালটোডেক্সট্রিন

টরিন

প্রোবায়োটিক কালচার লিমোসিল্যাকটোব্যাসিলাস রিউটেরি ০.০৩৭৪%

কলিন

আ্যান্টিঅক্সিডেন্ট (৩০৭ এবং ৩০৪)

ল্যাকটোজেন ১ খাওয়ার নিয়ম নিম্নলিখিত:

 

শিশুর বয়স: আগে ফুটানো পানি

কত চামচ ল্যাকটোজেন ১: দৈনিক কতবার খাওয়াবেন

Table

 

সপ্তাহ পানির পরিমাণ ল্যাকটোজেন ১ চামচ দৈনিক খাওয়াবেন

১ম ও ২য় ৯০ মিলি ৩ চামচ ৬ বার

৩য় ও ৪র্থ ১২০ মিলি ৬ চামচ ৫ বার

২য় মাস ১৫০ মিলি ৫ চামচ ৫ বার

৩য় ও ৪র্থ মাস ১৮০ মিলি ৬ চামচ ৫ বার

৫ম ও ৬ষ্ঠ মাস ২১০ মিলি ৭ চামচ ৫ বার

ল্যাকটোজেন ১ বানানোর নিয়ম:

 

হাত ভালোভাবে ধুয়ে নিন।

তৈরির ব্যবহার সামগ্রি ভালোভাবে ধুয়ে নিন।

ব্যবহার সামগ্রী পানিতে ৫ মিনিট ফুটিয়ে ব্যবহার না করা পর্যন্ত ঢেকে রাখুন।

খাওয়ার পানি ৫ মিনিট ধরে ফুটিয়ে ঠান্ডা করুন।

দাগকাটা ঢাকনায়ুক্ত পাত্রে সঠিক পরিমাণ হালকা গরম পানি নিন।

সংযুক্ত চামচে টিনের মুখের লেভেল আর দিয়ে সমান করে ল্যাকটোজেন ১ ফর্মুলা নিন।

নির্দেশনা দেখে বয়স অনুযায়ী সঠিক ল্যাকটোজেন ১ ফর্মুলা নিন।

ল্যাকটোজেন ১ খাওয়ার নিয়ম নিম্নলিখিত:

  • শিশুর বয়স: আগে ফুটানো পানি
  • কত চামচ ল্যাকটোজেন ১: দৈনিক কতবার খাওয়াবেন

Table

সপ্তাহ পানির পরিমাণ ল্যাকটোজেন ১ চামচ দৈনিক খাওয়াবেন
১ম ও ২য় ৯০ মিলি ৩ চামচ ৬ বার
৩য় ও ৪র্থ ১২০ মিলি ৬ চামচ ৫ বার
২য় মাস ১৫০ মিলি ৫ চামচ ৫ বার
৩য় ও ৪র্থ মাস ১৮০ মিলি ৬ চামচ ৫ বার
৫ম ও ৬ষ্ঠ মাস ২১০ মিলি ৭ চামচ ৫ বার

ল্যাকটোজেন ১ বানানোর নিয়ম:

  1. হাত ভালোভাবে ধুয়ে নিন।
  2. তৈরির ব্যবহার সামগ্রি ভালোভাবে ধুয়ে নিন।
  3. ব্যবহার সামগ্রী পানিতে ৫ মিনিট ফুটিয়ে ব্যবহার না করা পর্যন্ত ঢেকে রাখুন।
  4. খাওয়ার পানি ৫ মিনিট ধরে ফুটিয়ে ঠান্ডা করুন।
  5. দাগকাটা ঢাকনায়ুক্ত পাত্রে সঠিক পরিমাণ হালকা গরম পানি নিন।
  6. সংযুক্ত চামচে টিনের মুখের লেভেল আর দিয়ে সমান করে ল্যাকটোজেন ১ ফর্মুলা নিন।
  7. নির্দেশনা দেখে বয়স অনুযায়ী সঠিক ল্যাকটোজেন ১ ফর্মুলা নিন।
  8. পাউডার ভালোভাবে মিশিয়ে যত তাড়াত

 

ল্যাকটোজেন ১ এর উপকারিতা কি?

ল্যাকটোজেন ১ হলো শিশুর প্রথম দিক কার পুষ্টিগুণ বেড়ে উঠার জন্য উপযুক্ত একটি ফর্মুলা মিল্ক। এটি শিশুর স্বাস্থ্যের ও প্রথম দিকে বেড়ে উঠার জন্য প্রয়োজনীয় উপাদান সহজেই হজম হয়ে যায়, যার ফলে শিশুর পাচকতন্ত্র খুব সহজেই মানিয়ে নিতে পারে।

 

এটির সঠিক ব্যবহার ও পরিমাণের জন্য স্বাস্থ্য কর্মীর পরামর্শ অত্যন্ত জরুরী। কারণ আপনি যদি পরিমাণে কম বেশি করে ফেলেন তাহেল আপনার শিশুর জন্য এটি সমস্যার কারণ হতে পারে। তাই পরামর্শ ছাড়া এটির ব্যবহার আপনার শিশুর অতিরিক্ত কান্নাকাটি এবং কোষ্ঠকাঠিন্যের কারণ হতে পারে।